News

Biman News

                                               

ট্যুর অপারেটরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টোয়াব) আয়োজিত দেশের সর্ববৃহৎ আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা ‘বিমান বাংলাদেশ ট্রাভেল এন্ড ট্যুরিজম ফেয়ার ২০১৯’ আগামী ১৮ এপ্রিল থেকে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কনফারেন্স সেন্টারে অনুষ্ঠিত হবে। এর টাইটেল স্পন্সর জাতীয় পতাকাবাহী প্রতিষ্ঠান বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স।

 

আজ (মঙ্গলবার) বিমানের প্রধান কার্যালয় বলাকা’য় বিমান এবং টোয়াব এর মধ্যে ‘বিমান বাংলাদেশ ট্রাভেল এন্ড ট্যুরিজম ফেয়ার ২০১৯’ স্পন্সরশীপের একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষরিত হয়। বিমানের মহাব্যবস্থাপক জনসংযোগ শাকিল মেরাজ এবং টোয়াব এর সভাপতি তৌফিক উদ্দিন আহমেদ তাঁদের স্ব স্ব সংস্থার পক্ষে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেন। উক্ত অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বিমানের মহাব্যবস্থাপক বিক্রয় শামসুল করিম, মহাব্যবস্থাপক বিপণন সালাহ্উদ্দিন আহমেদ এবং টোয়াবের সহ-সভাপতি মোঃ ইফতেখার আলম ভূইঁয়া, টোয়াবের পরিচালক (মেলা ও বাণিজ্য) মোঃ তাসলিম আমিন শোভন ও টোয়াবের উপদেষ্টা তানভির আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

 

বিমানের মহাব্যবস্থাপক জনসংযোগ শাকিল মেরাজ বলেন, বাংলাদেশের পর্যটন খাতের অন্যতম স্টেকহোল্ডার টোয়াব আয়োজিত সর্ববৃহৎ পর্যটন মেলার টাইটেল স্পন্সর হতে পেরে জাতীয় পতাকাবাহী সংস্থা হিসেবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স গর্বিত। মেলা উপলক্ষে বিমান ভ্রমণ পিপাসু পর্যটকদের জন্য বিমানের জনপ্রিয় পর্যটন গন্তব্যসমূহে বিশেষ ছাড় দেওয়ার পাশাপাশি মেলায় দর্শনার্থীদের জন্য র‌্যাফেল ড্র-তে সৌজন্য টিকেটও প্রদান করা হবে।

 

টোয়াব এর সভাপতি তৌফিক উদ্দিন আহমেদ তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘বিমান বাংলাদেশ ট্রাভেল ও ট্যুরিজম ফেয়ার ২০১৯ এ বিভিন্ন দেশের জাতীয় পর্যটন সংস্থা, এয়ারলাইন্স, ট্যুর অপারেটরস, হোটেল ও রিসোর্ট, আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং ট্রাভেল ও ট্যুর সংশ্লিষ্ট সকল সংস্থাগুলো ১৬০ টি স্টল এবং ১৫ টি প্যাভিলিয়নে তাদের পণ্য ও সেবা তুলে ধরবেন। তিন দিনের এ মেলা চলাকালে অংশগ্রহণকারী সকল সংস্থা দর্শনাথীদের জন্য বিভিন্ন আকর্ষণীয় ট্যুর প্যাকেজ এবং হ্রাসকৃত মূল্যে টিকেট ক্রয়ের সুযোগ দেবে। এই ইভেন্টে ভারতের পর্যটন মন্ত্রনালয়  এবং বাংলাদেশ, শ্রীলংকা, নেপাল ও ভূটানের জাতীয় পর্যটন সংস্থা অংশ গ্রহন করবে। মেলায় ভারত, ভূটান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, চীন, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন,  শ্রীলংকা, মালদ্বীপ ও ভিয়েতনামের ট্যুরিজম প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মেলার উদ্বোধন করবেন। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত  থাকবেন।