News

Biman News

                                                           

যুক্তরাজ্যের কার্গো নিরাপত্তামান বিষয়ক ACC3 অডিট সনদ অর্জন করার ফলে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ঢাকা-লন্ডন রুটের সরাসরি কার্গো পরিবহন শুরু হচ্ছে আগামীকাল বুধবার থেকে। দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে আগামীকাল সকাল ১০:৪৫ ঘটিকায় বিজি ০০১ ফ্লাইটযোগে ঢাকা থেকে লন্ডনে সরাসরি কার্গো পরিবহন শুরু হবে।

 

গত ৮ মার্চ ২০১৬ ইং তারিখে যুক্তরাজ্য সরকার কর্তৃক  বাংলাদেশ হতে আকাশ পথে কার্গো পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার ফলে বিমানের ঢাকা-লন্ডন রুটে সরাসরি কার্গো পরিবহন বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে বিগত ২ বছরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কার্গো আমদানি ও রপ্তানী শাখায় ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের নিরাপত্তা মান অনুযায়ী বিমানবন্দরের সার্বিক নিরাপত্তার মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে ব্যাপক উদ্যোগ নেয়া হয় যার আওতায় ইউরোপগামী কার্গো পণ্যের সেকেন্ডারী   স্ক্রিনিং এর জন্য এক্সপ্লোসিভ ডিটেক্টর সিষ্টেম  (ইডিএস), এক্সপ্লোসিভ ডিটেকশন ডগ  (ইডিডি) ,এক্সপ্লোসিভ ট্রেস ডিটেক্টর(ইডিটি) মেশিন স্থাপন করা হয়। ইউরোপগামী সকল কার্গো পণ্যের জন্য বিশেষভাবে সুরক্ষিত RA-3 ওয়্যার হাউজ নির্মাণ করা হয় এবং উক্ত ওয়্যার হাউজে বিমানের কর্মী ব্যতীত বহিরাগতদের প্রবেশ বন্ধ করা হয়।

 

এছাড়াও  বিমানের কার্গো হ্যান্ডেলিং এ  নিয়োজিত সকল কর্মীর পুলিশ ক্লিয়ারেন্স, ব্যাকগ্রাউন্ড চেক, ট্রেনিং রেকর্ড, বৈধ পাস, নিয়োগ সংক্রান্ত সকল তথ্য নিয়ে ডাটাবেজ  তৈরী করা হয়। কার্গো  এলাকার সকল  এন্ট্রি পয়েন্টে একসেস কন্ট্রোল সিস্টেম চালু করা হয়।  বিমানবন্দর এপ্রোন এলাকায় ওয়ার হ্উাজ থেকে এয়ারক্রাফট কার্গো পরিবহন পর্যন্ত ২৪ ঘন্টা সার্বক্ষনিক এস্কর্ট প্রদানের জন্য ৫টি গাড়ী নিয়োজিত করা হয়েছে।

 

 

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের কার্গো হ্যান্ডলিং এ নিয়োজিত কর্মীদের বৃটিশ নিরাপত্তা পরামর্শক  প্রতিষ্ঠান রেড লাইনের সহায়তায় নিরাপত্তা প্রশিক্ষণের পাশাপাশি বিমানের নিজস্ব ট্রেনিং সেন্টার (বিএটিসি) কর্তৃক ’’কার্গো সিকিউরিটি কোর্স’’, ডেঞ্জারাস গুডস রেগুলেশন্স কার্গো অপারেটিং কোর্স পরিচালনার মাধ্যমে কর্মীদের ব্যাপকভিত্তিক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। কার্গো হেলপার থেকে শুরু করে কার্গো ব্যবস্থপনায় নিয়োজিত  নির্বাহীগণও  প্রশিক্ষণের আওতায় আসে। নিরাপত্তা সংক্রান্ত সকল ম্যানুয়াল যেমন - কার্গো অপারেশন্স ম্যানুয়াল, এয়ার কার্গো সিকিউরিটি প্রোগ্রাম, এয়ার অপারেটর সিকিউরিটি প্রোগ্রাম, ন্যাশনাল সিভিল এভিয়েশন সিকিউরিটি প্রোগ্রাম, ইউরোপীয় ইউনিয়ন রেগুলেশন্স অনুযায়ী আপগ্রেড করা হয়।

 

গত ১৩-১৬ নভেম্বর-২০১৭ তারিখে রেগুলেটরী এজেন্ট ফর থার্ড কান্ট্রি (RA-3) অডিট সম্পন্ন হয়। বিমান কার্গো হ্যান্ডলিং এজেন্ট হিসেবে উক্ত অডিটে সফলতার সংগে উত্তীর্ণ হয়। এ প্রেক্ষিতে ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ তারিখে ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং ডিপার্টমেন্ট ফর ট্রান্সপোর্টেশন (RA-3) ইউকে হতে বাংলাদেশের উপর হতে কার্গো  নিষেধাজ্ঞা  প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। তবে বিমান কার্গো হ্যান্ডলিং এজেন্ট হিসেবে কার্গো নিষেধাজ্ঞা মুক্ত হলেও কার্গো ক্যারিয়ার হিসেবে বিমানকে আলাদাভাবে অপর আরেকটি অডিট AIR CARGO OR MAIL CARRIER OPERATING IN TO THE UNION FROM A 3RD COUNTRY AIRPORT  (ACC3)-এর  মুখোমুখি হতে হয়। উক্ত ACC3 অডিট গত ১৯-২২ ফেব্রুয়ারী তারিখে অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং বিমান সফলতার সাথে উত্তীর্ণ হয়েছে। সংশ্লিষ্ট অডিটর ২৪/০২/২০১৮ তারিখে অডিট রিপোর্ট সিভিল এভিয়েশন ইউকের কাছে জমা দেন, পরবর্তীতে  Department for transportation (DFT) UK  এর কাছে অগ্রগামী করা হয়। গতকাল (সোমবার) রাতে বিমানকে DFT থেকে ই-মেইলে ACC3 অডিট সনদ অর্জনের বিষয়ে অবহিত করা হয়। এর ফলে ১২ মার্চ থেকে বাংলাদেশ বিমানের  ফ্লাইটে লন্ডনগামী কার্গো পরিবহনে কোন নিষাধাজ্ঞা রইলোনা। আগামীকাল সকাল ১০:৪৫ ঘটিকায় বিজি ০০১ ফ্লাইটযোগে ঢাকা থেকে লন্ডনে পুনরায় সরাসরি কার্গো পরিবহন শুরু হবে।